দাগছোপ দূর করে ত্বকের উজ্জ্বলতা বাড়াবে পেঁয়াজ

রূপ সচেতন নারীরা নানা উপায়ে তাদের ত্বকের যত্ন নিয়ে থাকেন। তারপরও আমাদের পরিবেশ ও খাদ্যাভ্যাসের কারণে ত্বকে নানা রকম সমস্যা দেখা দেয়। অনেকেই রূপচর্চায় নানা রকম নামি দামি প্রসাধনী ব্যবহার করে থাকেন। যার ফলাফল সবসময় ভালো হয় না।

আপনি জানেন কি, আপনার রান্না ঘরেই লুকিয়ে রয়েছে রূপচর্চার নানা উপাদান। সেগুলোর মধ্যে পেঁয়াজ খুবই কার্যকরী। যদিও পেঁয়াজ কাটার সময় চোখ জলে ভরে আসে, তবুও ওই পেঁয়াজের মধ্যেই লুকিয়ে আছে আপনার রূপচর্চার জরুরি উপাদান। চলুন জেনে নেয়া যাক বিস্তারিত-

পেঁয়াজ ত্বকের পক্ষে ভালো কেন? পেঁয়াজে প্রচুর পরিমাণে ফ্ল্যাভোনয়েড আর সেই সঙ্গে অ্যান্টি অক্সিডান্ট রয়েছে। এসব উপাদান আমাদের ত্বকের কোষগুলোকে ক্ষতিকর অতিবেগুনি রশ্মির হাত থেকে রক্ষা করে। শুধু পেঁয়াজের রস লাগিয়েই ত্বকের নানান সমস্যা থেকে সহজেই নিস্তার পেতে পারেন আপনি!

ত্বক উজ্জ্বল করতে নিয়মিত পেঁয়াজের রস লাগালে বিবর্ণ, প্রাণহীন ত্বকেও জেল্লার ছোঁয়া লাগে। পেঁয়াজের অ্যান্টি অক্সিডান্ট আর ভিটামিন ত্বকের প্রাণ ফিরিয়ে আনে ঝটপট!

দাগছোপ, পিগমেন্টেশন প্রতিরোধে পেঁয়াজে প্রচুর ভিটামিন সি রয়েছে। শরীরের যেকোনো কালো দাগ, পিগমেন্টেশন কমাতে তাই পেঁয়াজ খুবই কাজের! পেঁয়াজ থেঁতো করে টাটকা রস বের করে নিন, তাতে দিন এক চিমটি হলুদ! এবার এই মিশ্রণটা মুখে প্রতিদিন মাসাজ করে দেখুন, কীভাবে দীপ্তিময় হয়ে ওঠে আপনার ত্বক!

বয়সের থাবা আটকাতে মুখে সরু সরু বয়সের রেখা মেটাতে ভরসা রাখুন পেঁয়াজে। একটা টাটকা মাঝারি আকারের পেঁয়াজ টুকরো করে কেটে রস করে নিন। এবার ওই রসে তুলো ভিজিয়ে সারা মুখে লাগান। মুখে পেঁয়াজের রস লাগালে আপনার ত্বকের কোষগুলোয় রক্ত সংবহন ক্ষমতা জোরদার হয়ে ওঠে, ফলে ত্বকে লাগে তারুণ্যের ছোঁয়া।

ব্রণ কমাতে ব্রণ বা ফুসকুড়ির সমস্যা লেগেই থাকে? এক টেবিল চামচ পেঁয়াজের রসের সঙ্গে এক টেবিল চামচ অলিভ অয়েল বা আমন্ড অয়েল ভালো করে মিশিয়ে নিন। এই পেঁয়াজের প্যাক মুখে লাগিয়ে হালকা হাতে মাসাজ করুন। ১৫ মিনিট রেখে তারপর ঠান্ডা পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। ব্রণ তো বিদায় নেবেই, সংক্রমণ হয়ে থাকলে তাও কমে যাবে।

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*