প্রেমিকাকে দেখে বিয়ের আসর থেকে দৌড়ে পালালেন জামাই!

ঘটনাটি ঘটেছে ঢাকার ধামরাই উপজেলার সুয়াপুর ইউনিয়নের ঈশাননগর এলাকায়। বরযাত্রী নিয়ে রওনা দেয়ার ঠিক আগ মুহূর্তে প্রেমিকা এসে হাজির বরের বাড়িতে। অবস্থা বেগতিক বুঝতে পেরে বিয়ের পোশাকেই দৌড়ে পালালেন বর।

গত মঙ্গলবার (৮ জুন) সন্ধ্যায় এ ঘটনা ঘটে। এ সময় এক হাতে বিষের বোতল ও আরেক হাতে কাফনের কাপড় নিয়ে বিয়ের দাবিতে অনশন শুরু করে দেন ভুক্তভোগী ওই তরুণী।

এদিকে অভিযুক্ত প্রেমিক সুয়াপুর ইউনিয়নের ঈশাননগর এলাকা মো. আব্দুল খালেকের ছেলে মো. দিদার হোসেন। তিনি মানিকগঞ্জ পোড়রা খান বাহাদুর কলেজের ডিগ্রি পরীক্ষার্থী।

জানা গেছে, ভুক্তভোগী ওই তরুণীর সঙ্গে একই এলাকার দিদার হোসেনের প্রেমের সম্পর্ক দীর্ঘদিনের। বিয়ের আশ্বাসও দিয়েছেন ছাত্রীকে। কিন্তু এখন দিদার তাকে বিয়ে না করে উপজেলার সোমভাগ ইউনিয়নের ভালুম এলাকার এক তরুণীকে বিয়ে করতে যাচ্ছেন। গোপন খবরের ভিত্তিতে জানতে পেরে প্রেমিকা একহাতে বিষের বোতল আর অপর হাতে কাফনের কাপড় নিয়ে প্রেমিকের বাড়িতে এসে হাজির হন।

এ সময় বিয়ের দাবিতে অনশন শুরু করা ভুক্তভোগী ওই তরুণী স্লোগান দেন ‌‘দাবি আমার একটাই, স্বামী চাই, স্বামী চাই’। ‘হয় বিয়ে না হয় বিষপানে আত্মহত্যা হবে’। দাবি পূরণ না হওয়া পর্যন্ত আমরণ অনশন চলবে বলেও জানান তিনি।

অভিযুক্ত দিদারের বাবা আব্দুল খালেক বলেন, ছেলের সঙ্গে ওই মেয়ের প্রেমের কথা জানলে অন্য মেয়ের সঙ্গে বিয়ে ঠিক করতাম না। এই অবস্থায় ভেবে স্থির করতে পারছি না কী করব।

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*